fbpx

Home

coachsys front

কোচসিস

শিক্ষা উদ্যোক্তাদের জন্য পূর্ণ স্বয়ংক্রিয়তা
কোচসিস প্রস্তুত অনলাইনে আপনার শিক্ষার্থী ভর্তি করা, প্রতিষ্ঠানের সব শিক্ষক আর শিক্ষার্থীকে সংযুক্ত করা, সবচেয়ে সহজে ইন্টারএকটিভ লাইভ ক্লাস নেয়া, ক্লাসে অংশ নিলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে উপস্থিতি নিয়ে নেয়া, কোর্স ফি অটো জেনারেট করা, লেকচার শিট শেয়ার করা, রেজাল্ট দেয়া, নোটিশ দেয়া সহ সব কার্যক্রম সামলাতে। আপনি প্রস্তুত তো?

কী আছে কোচসিসে?

login

কোচসিস শুধুমাত্র এডমিনদের জন্য নয়। কোচসিস প্রতিষ্ঠানের সকল শিক্ষার্থীর জন্য, সকল শিক্ষকদের জন্যেও। প্রত্যেকেই লগইন করে নিজেদের প্রয়োজনীয় তথ্য দেখার বা কাজ করার সুযোগ পান। শুধু তা-ই নয়, সব ধরনের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, কোচিং ও ট্রেনিং সেন্টার এর কার্যক্রম চালানো যায় কোচসিসে আর তাই বলা যায়, “সবার জন্য কোচসিস”।

সবার জন্য কোচসিস

কোচসিস শুধুমাত্র এডমিনদের জন্য নয়। কোচসিস প্রতিষ্ঠানের সকল শিক্ষার্থীর জন্য, সকল শিক্ষকদের জন্যেও। প্রত্যেকেই লগইন করে নিজেদের প্রয়োজনীয় তথ্য দেখার বা কাজ করার সুযোগ পান। শুধু তা-ই নয়, সব ধরনের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, কোচিং ও ট্রেনিং সেন্টার এর কার্যক্রম চালানো যায় কোচসিসে আর তাই বলা যায়, “সবার জন্য কোচসিস”।

sms

কোচসিসের প্রায় সব ইভেন্টের সাথে ইন্টিগ্রেট করা আছে এসএমএস। অনলাইনে লাইভ ক্লাস শুরু হওয়ার সাথে সাথে এসএমএস চলে যাওয়ার মত ফিচার থেকে শুরু করে শিক্ষার্থীদের ভর্তি, পেমেন্ট, পরীক্ষার মার্ক কিংবা নোটিশেও চলে যাবে এসএমএস। শুধু তা-ই নয়, চাইলে সেই এসএমএসগুলো নিজেদের মত করে কাস্টোমাইজ করে নেয়ার সুযোগও আছে এখানে।

এসএমএস নোটিফিকেশন

কোচসিসের প্রায় সব ইভেন্টের সাথে ইন্টিগ্রেট করা আছে এসএমএস। অনলাইনে লাইভ ক্লাস শুরু হওয়ার সাথে সাথে এসএমএস চলে যাওয়ার মত ফিচার থেকে শুরু করে শিক্ষার্থীদের ভর্তি, পেমেন্ট, পরীক্ষার মার্ক কিংবা নোটিশেও চলে যাবে এসএমএস। শুধু তা-ই নয়, চাইলে সেই এসএমএসগুলো নিজেদের মত করে কাস্টোমাইজ করে নেয়ার সুযোগও আছে এখানে।

live class

কোচসিস এর ‘লাইভ ক্লাস’ ফিচার এর মাধ্যমে এখন আর ক্লাসরুমের মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকবে না পাঠদান। বিশ্বের যেকোনো প্রান্তে থাকা যে কেউই আপনার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী হওয়ার সুযোগ পাবে। ইন্টারএকটিভ ক্লাসগুলোতে শধু দেখাই নয়, তারা কথাও বলতে পারবে। সাথে চলবে লাইভ চ্যাট। এক দিনে যতগুলো ইচ্ছে লাইভ ক্লাস নেয়া যাবে। শুধু তা-ই না, একইসাথে একাধিক শিক্ষকও একাধিক ক্লাস নিতে পারবেন। এখানেও কোনো লিমিটেশন নেই। নেই লিংক বা পাসওয়ার্ড শেয়ারের ঝামেলা। ব্যাচভিত্তিক ক্লাস শিডিউল তৈরির সাথে সাথে লাইভ ক্লাসের সবকিছুই তৈরি হয়ে যাবে স্বয়ংক্রিয়ভাবে। ক্লাসে শিক্ষার্থীরা অংশ নিলে তাদের উপস্থিতিও স্বয়ংক্রিয়ভাবে নিয়ে নিবে কোচসিস।

লাইভ ক্লাস

কোচসিস এর ‘লাইভ ক্লাস’ ফিচার এর মাধ্যমে এখন আর ক্লাসরুমের মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকবে না পাঠদান। বিশ্বের যেকোনো প্রান্তে থাকা যে কেউই আপনার শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী হওয়ার সুযোগ পাবে। ইন্টারএকটিভ ক্লাসগুলোতে শধু দেখাই নয়, তারা কথাও বলতে পারবে। সাথে চলবে লাইভ চ্যাট। এক দিনে যতগুলো ইচ্ছে লাইভ ক্লাস নেয়া যাবে। শুধু তা-ই না, একইসাথে একাধিক শিক্ষকও একাধিক ক্লাস নিতে পারবেন। এখানেও কোনো লিমিটেশন নেই। নেই লিংক বা পাসওয়ার্ড শেয়ারের ঝামেলা। ব্যাচভিত্তিক ক্লাস শিডিউল তৈরির সাথে সাথে লাইভ ক্লাসের সবকিছুই তৈরি হয়ে যাবে স্বয়ংক্রিয়ভাবে। ক্লাসে শিক্ষার্থীরা অংশ নিলে তাদের উপস্থিতিও স্বয়ংক্রিয়ভাবে নিয়ে নিবে কোচসিস।

Lecture sheet

লেকচার শিট এখন পড়া যাবে অনলাইনেই। কোর্স এবং ব্যাচ অনুযায়ী লেকচার শিট ওয়ার্ড বা ইমেজ বা পিডিএফ ফরম্যাটে আপ করে রাখা যাবে আর সে অনুযায়ী শিক্ষার্থীরা তাদের একাউন্টে লগইন করে পড়ার কিংবা ডাউনলোড করে নেয়ার সুযোগ পাবে।

লেকচার শিট অনলাইনেই

লেকচার শিট এখন পড়া যাবে অনলাইনেই। কোর্স এবং ব্যাচ অনুযায়ী লেকচার শিট ওয়ার্ড বা ইমেজ বা পিডিএফ ফরম্যাটে আপ করে রাখা যাবে আর সে অনুযায়ী শিক্ষার্থীরা তাদের একাউন্টে লগইন করে পড়ার কিংবা ডাউনলোড করে নেয়ার সুযোগ পাবে।

payment

কে কোন কোর্সে ভর্তি হওয়ার সময় ভর্তি ফি কত দিয়েছিলো, কত বাকি ছিল, পরে কত ধাপে কত টাকা দিয়েছে। আবার মাসিক বেতন হলে সেখানেও কোন মাসে কে কত দিয়েছিলো, টোটাল ডিউ এখন কত, তার একেবারে পুঙ্খানুপুঙ্খ হিসাব থাকবে এখানে। শিক্ষার্থীরা চাইলে তাদের একাউন্টে লগইন করে তাদের নিজেদের হিসেব দেখে নিতে পারবেন। সুতরাং, আর ভুল বোঝাবুঝির অবকাশ থাকবে না। শুধু তা-ই না, শিক্ষকেরাও কে কোন ক্লাসের জন্য কত পেতেন, মোট কত পাওনা ছিল, আর পেয়েছেন কত সেসবও শিক্ষকেরা তাদের নিজেদের একাউন্টে লগইন করে দেখতে পাবেন। এমন কোনো কিছু কোনো কোচিং বা ট্রেনিং সেন্টার কর্তৃপক্ষ ভাবেনি আগে!

টাকা পয়সার সব হিসাব এক জায়গায়

কে কোন কোর্সে ভর্তি হওয়ার সময় ভর্তি ফি কত দিয়েছিলো, কত বাকি ছিল, পরে কত ধাপে কত টাকা দিয়েছে। আবার মাসিক বেতন হলে সেখানেও কোন মাসে কে কত দিয়েছিলো, টোটাল ডিউ এখন কত, তার একেবারে পুঙ্খানুপুঙ্খ হিসাব থাকবে এখানে। শিক্ষার্থীরা চাইলে তাদের একাউন্টে লগইন করে তাদের নিজেদের হিসেব দেখে নিতে পারবেন। সুতরাং, আর ভুল বোঝাবুঝির অবকাশ থাকবে না। শুধু তা-ই না, শিক্ষকেরাও কে কোন ক্লাসের জন্য কত পেতেন, মোট কত পাওনা ছিল, আর পেয়েছেন কত সেসবও শিক্ষকেরা তাদের নিজেদের একাউন্টে লগইন করে দেখতে পাবেন। এমন কোনো কিছু কোনো কোচিং বা ট্রেনিং সেন্টার কর্তৃপক্ষ ভাবেনি আগে!

digital attendance

লাইভ ক্লাসে শিক্ষার্থীরা অংশ নিলে তাদের উপস্থিতি স্বয়ংক্রিয়ভাবে নিয়ে নিবে কোচসিস। আর সাধারণ অফলাইন ক্লাসের ক্ষেত্রে কোনো ডিভাইসের সাহায্য ছাড়াই সরাসরি সফটওয়্যার থেকেই নেয়া যাবে প্রতিটা ক্লাসের উপস্থিতি যা আবার সাথে সাথে অভিভাবকের কাছে মোবাইল এসএমএস এর মাধ্যমে পাঠানোর সুযোগ। শুধু দৈনিক উপস্থিতিই নয়, মাসিক উপস্থিতির পূর্নাংগ রিপোর্টও এসএমএস-এ পাঠানোর সুযোগ আছে। আর শিক্ষার্থী বা অভিভাবক নিজের একাউন্টে লগইন করে যেকোনো সময়ের উপস্থিতির তথ্য দেখার সুযোগ তো আছেই।

ই-উপস্থিতি

লাইভ ক্লাসে শিক্ষার্থীরা অংশ নিলে তাদের উপস্থিতি স্বয়ংক্রিয়ভাবে নিয়ে নিবে কোচসিস। আর সাধারণ অফলাইন ক্লাসের ক্ষেত্রে কোনো ডিভাইসের সাহায্য ছাড়াই সরাসরি সফটওয়্যার থেকেই নেয়া যাবে প্রতিটা ক্লাসের উপস্থিতি যা আবার সাথে সাথে অভিভাবকের কাছে মোবাইল এসএমএস এর মাধ্যমে পাঠানোর সুযোগ। শুধু দৈনিক উপস্থিতিই নয়, মাসিক উপস্থিতির পূর্নাংগ রিপোর্টও এসএমএস-এ পাঠানোর সুযোগ আছে। আর শিক্ষার্থী বা অভিভাবক নিজের একাউন্টে লগইন করে যেকোনো সময়ের উপস্থিতির তথ্য দেখার সুযোগ তো আছেই।

class schdule

কোন দিন কোন ব্যাচের কোন ক্লাস তা আর বারবার বলার দরকার পড়বে না। এডমিন একবার ক্লাস শিডিউল তৈরি করে রাখলেই যেকোনো শিক্ষার্থী লগইন করে তার নিজের ব্যাচের শিডিউল দেখে নিতে পারবেন। শিক্ষকও চাইলে দেখে নিতে পারবেন তাকে কোন কোন ব্যাচের কী কী ক্লাসে কখন এসাইন করা হয়েছে।

ক্লাস শিডিউল

কোন দিন কোন ব্যাচের কোন ক্লাস তা আর বারবার বলার দরকার পড়বে না। এডমিন একবার ক্লাস শিডিউল তৈরি করে রাখলেই যেকোনো শিক্ষার্থী লগইন করে তার নিজের ব্যাচের শিডিউল দেখে নিতে পারবেন। শিক্ষকও চাইলে দেখে নিতে পারবেন তাকে কোন কোন ব্যাচের কী কী ক্লাসে কখন এসাইন করা হয়েছে।

notice

যেকোনো নোটিশ এক ক্লিকেই চলে যাবে সবার কাছে। চাইলে দেয়া যাবে নির্দিষ্ট কোনো কোর্সের নির্দিষ্ট কোনো ব্যাচে কিংবা সবাইকে। আর এসএমএস নোটিফিকেশনে এই ইভেন্ট এনাবল করা থাকলে অনলাইনের পাশাপাশি চলে যাবে সবার মোবাইলেও।

নোটিশ

যেকোনো নোটিশ এক ক্লিকেই চলে যাবে সবার কাছে। চাইলে দেয়া যাবে নির্দিষ্ট কোনো কোর্সের নির্দিষ্ট কোনো ব্যাচে কিংবা সবাইকে। আর এসএমএস নোটিফিকেশনে এই ইভেন্ট এনাবল করা থাকলে অনলাইনের পাশাপাশি চলে যাবে সবার মোবাইলেও।

result

কোন পরীক্ষায় কে কত পেলো সেটা প্রত্যেকের একাউন্টে চলে যাবে মুহূর্তেই। প্রত্যেকেই যার যার ফলাফল দেখতে পাবে। আর এসএমএস নোটিফিকেশনে এই ইভেন্ট এনাবল তো কথাই নেই। চলে যাবে যার যার মোবাইল নাম্বারেও। সেখানে শিক্ষার্থীর নিজের মার্ক, সর্বোচ্চ মার্ক, তার মেধাতালিকায় অবস্থানের উল্লেখও থাকবে।

পরীক্ষার ফলাফল

কোন পরীক্ষায় কে কত পেলো সেটা প্রত্যেকের একাউন্টে চলে যাবে মুহূর্তেই। প্রত্যেকেই যার যার ফলাফল দেখতে পাবে। আর এসএমএস নোটিফিকেশনে এই ইভেন্ট এনাবল তো কথাই নেই। চলে যাবে যার যার মোবাইল নাম্বারেও। সেখানে শিক্ষার্থীর নিজের মার্ক, সর্বোচ্চ মার্ক, তার মেধাতালিকায় অবস্থানের উল্লেখও থাকবে।

Report

আয় ব্যয় এর রিপোর্টের মধ্যেই সীমাবদ্ধ নেই রিপোর্ট মডিউল। দেখা যাবে প্রতিটা শিক্ষার্থীর বিস্তারিত অর্থনৈতিক, ফলাফল, উপস্থিতি ও ব্যক্তিগত তথ্য। পাশাপাশি আছে শিক্ষক ও কর্মচারিদের প্রত্যেকের বিস্তারিত রিপোর্ট। এসএমএস এর বিস্তারিত রিপোর্টও আছে। আছে সার্ভারের ব্যবহৃত স্পেসের রিপোর্টও।

বিস্তারিত রিপোর্ট

আয় ব্যয় এর রিপোর্টের মধ্যেই সীমাবদ্ধ নেই রিপোর্ট মডিউল। দেখা যাবে প্রতিটা শিক্ষার্থীর বিস্তারিত অর্থনৈতিক, ফলাফল, উপস্থিতি ও ব্যক্তিগত তথ্য। পাশাপাশি আছে শিক্ষক ও কর্মচারিদের প্রত্যেকের বিস্তারিত রিপোর্ট। এসএমএস এর বিস্তারিত রিপোর্টও আছে। আছে সার্ভারের ব্যবহৃত স্পেসের রিপোর্টও।

inventory

প্রতিষ্ঠানের ব্যবহার্য জিনিসপত্র থেকে শুরু করে শিক্ষার্থীদের জন্য দেয়া উপহার সামগ্রী সব কিছুরই স্টক রাখা যাবে। দেখা যাবে কখন কত টাকায় কত পরিমাণ আনা হয়েছিলো, কবে কতটুকু ব্যবহার করা হয়েছিলো, বর্তমান পরিমাণ – সবকিছুই।

স্টক ইনভেন্টরি

প্রতিষ্ঠানের ব্যবহার্য জিনিসপত্র থেকে শুরু করে শিক্ষার্থীদের জন্য দেয়া উপহার সামগ্রী সব কিছুরই স্টক রাখা যাবে। দেখা যাবে কখন কত টাকায় কত পরিমাণ আনা হয়েছিলো, কবে কতটুকু ব্যবহার করা হয়েছিলো, বর্তমান পরিমাণ – সবকিছুই।


FAQ (সচরাচর জিজ্ঞাসিত প্রশ্ন)

[select-faq faq_id=’1433,1434,1441,1444′]


কোচসিস পৌঁছে গেছে
১১
জেলায়
৫৪
প্রতিষ্ঠানে
৫১৭৫
শিক্ষার্থীর কাছে
*এই তথ্য সর্বশেষ আপডেট করা হয়েছে ০৩ এপ্রিল, ২০২১

যারা বেছে নিয়েছেন কোচসিস

ব্যবহৃত প্রযুক্তি
laravel

লারাভেল

maria db

মারিয়া ডিবি

vuejs

ভিউ জেএস

bootstrap

বুটস্ট্র্যাপ

home get in touch points2
contact

যোগাযোগ করুন এখনই